এবার তেল ছাড়াই চলবে বিএমডব্লিউ গাড়ি

এবার তেল ছাড়াই চলবে বিএমডব্লিউ গাড়ি
Loading...

দেশের বাজারে হাইব্রিড আইপারফমেন্সের প্লাগ-ইন গাড়ি আনলো জার্মানির বিলাসবহুল গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বিএমডব্লিউ। হাইব্রিড প্লাগ-ইন গাড়ির বড় সুবিধা হলো এটি জ্বালানির পাশাপাশি ব্যাটারিতেও চলে। এবং এই গাড়ির ব্যাটারি চার্জ করা যায়। যেটা হাইব্রিড গাড়িতে নেই। হাইব্রিড গাড়ি জ্বালানিতে চলাকালীন চার্জ হয়। ফলে হাইব্রিড প্লাগইন গাড়ির জ্বালানি সাশ্রয়ী।

আজ শনিবার রাজধানীর তেজগাঁওয়ে বিএমডব্লিউর পরিবেশক প্রতিষ্ঠান এক্সিকিউটি মোটরস লিমিটেডের বিক্রয় ও প্রদর্শনী কেন্দ্রে এই গাড়ি অবমুক্ত করা হয়। তিনটি মডেলে নতুন এই প্রযুক্তির গাড়ি পাওয়া যাবে। মডেলগুলো হলো-বিএমডব্লিউ ৫৩০ ই, বিএমডব্লিউ ৭৪০ এলই এক্সড্রাইভ এবং বিএমডব্লিউ এক্স ফাইভ এক্সড্রাইভ ৪০ ই।

বিলাসবহুল গাড়ি মানেই অধিক জ্বালানি খরচ। এই ধারণা বদলে দিয়ে ২০০৮ সালে টেসলা অটোমোবিলস বাজারে নিয়ে এসেছিল ফুল ইলেকট্রিক প্রিমিয়াম কার। ইলেকট্রিক এবং হাইব্রিড ফুয়েল ইঞ্জিনের সমন্বয়ে বাংলাদেশে সর্বপ্রথম ব্র্যান্ড নিউ গাড়ি নিয়ে এলো বিএমডব্লিউ।

আই পারফরমেন্স খ্যাত প্লাগ ইন মডেলগুলো বেশ নজরকাড়া। এই গাড়িগুলোর অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো, এক ফোটা জ্বালানি খরচ না করে ৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত চলতে সক্ষম। এই গাড়ি পরিপূর্ণ চার্জ নিতে ৩ থেকে সাড়ে ৩ ঘণ্টা সময় নেয়।

এছাড়াও গাড়িগুলোতে ফুয়েল সাশ্রয়ের জন্য হাইব্রিড ইঞ্জিন রয়েছে। ৩টি মোডে গাড়িগুলো ড্রাইভ করা যাবে।

এক্সিকিউট মোটর লিমিটেডের অপারেশন বিভাগের ডিরেক্টর দেওয়ান মুহাম্মদ সাজিদ ঢাকা টাইমসকে বলেন, হাইব্রিড গাড়ির চেয়ে একধাপ এগিয়ে হাইব্রিড প্লাগ ইন গাড়ি। কেননা, হাইব্রিড গাড়ির ব্যাটারি চার্জ করা যায় না। কিন্তু হাইব্রিড প্লাগ গাড়ির ব্যাটারি চার্জ দেয়া যায়। এতে করে জ্বালানি ছাড়াই ব্যাটারির সহায়তায় বেশ লম্বা দূরত্ব অতিক্রম করা যায়।

বিএমডব্লিউর নতুন তিনটি গাড়িতেই পাঁচ বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা দেয়া হচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছে সার্ভিস ওয়্যারেন্টি, রক্ষণাবেক্ষণ এবং বিনামূল্যে মেরামত সুবিধা।

Loading...